পশ্চিমবঙ্গে কবে বৃষ্টি হবে, কি জানালেন আবহাওয়া দপ্তর

তাপমাত্রার কঠিন হাত থেকে মুক্তি পাওয়া যায়নি। গরমের হাত থেকে রেহাই পাওয়া যায়নি। পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায়, পশ্চিম বর্ধমান, পশ্চিম মেদিনীপুর এবং বীরভূমে তিব্র তাপমাত্রার সম্ভাবনা রয়েছে। সুতরাং, দক্ষিণবঙ্গের মোট ৭ জেলায় একটি কঠিন তাপমাত্রা উত্থানের সম্ভাবনা রয়েছে।

পার্বত্য জেলাগুলির বাইরে কোনো বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই

আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে পার্বত্য জেলাগুলির বাইরে কোনো বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই।

চরম তাপপ্রবাহের জন্য সতর্কবার্তা। পার্বত্য জেলাগুলির বাইরে কোনো বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। তাপপ্রবাহ আরও সাতদিন ধরে থাকবে। চারদিনের মধ্যে তাপমাত্রা ধীরে ধীরে বাড়তে থাকবে। রাজ্যের জেলাগুলিতে ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের তাপমাত্রা বাড়াতে পারে। আবহাওয়া দফতর সতর্কবার্তা দেয়, প্রয়োজন হলে সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৪ টে পর্যন্ত বাইরে না যাওয়া উচিত। তাপমাত্রার তীব্রতা থেকে মুক্তি নেই।

দক্ষিণবঙ্গেও চরম তাপমাত্রার জন্য সতর্কবার্তা জারি হয়েছে। তাপমাত্রা দক্ষিণবঙ্গে ১-২ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে। এখানে জলবায়ু আর্দ্র হবে, আবহাওয়া গরম ও অস্থির হবে। পশ্চিমবর্ধমানে লু পরিস্থিতি বাঁধার সম্ভাবনা রয়েছে। উপকূল ও সংলগ্ন জেলাগুলিতে গরম এবং অস্বস্থ অবস্থার সম্ভাবনা রয়েছে। পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, এবং বাঁকুড়া জেলাগুলিতে চরম তাপমাত্রার জন্য বিশেষ সতর্কতা প্রয়োজন। পশ্চিমবর্ধমানের সব জেলায় শুকনো গরমের চিহ্নিত সম্ভাবনা রয়েছে। কলকাতা এবং উপকূল ও সংলগ্ন জেলাগুলিতে দুপুরে লু পরিস্থিতির জন্য সতর্কতা প্রয়োজন, সেখানে গরম এবং আর্দ্রতা জনিত অস্বস্থ অবস্থাও রয়েছে।

দার্জিলিং ও কালিম্পং এবং জলপাইগুড়ি জেলাতে তাপমাত্রা বৃদ্ধি হচ্ছে এবং উত্তরবঙ্গে তাপপ্রবাহের প্রভাব অনুভব করা হচ্ছে। এই পাহাড় সংলগ্ন জেলাগুলিতে গরম এবং অস্বস্তিকর আবহাওয়া উপলব্ধ। ২৮ ও ৩০ এপ্রিলে দার্জিলিং, কালিম্পং এবং জলপাইগুড়ি জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। রবিবারে এই জেলাগুলিতে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি সম্ভাবনা রয়েছে। আবার, মালদা, উত্তর দিনাজপুর ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলাতেও তাপমাত্রা বৃদ্ধি হচ্ছে। সতর্কতা প্রদানের জন্য সব জেলায় তাপ প্রবাহের সতর্কবার্তা প্রদান হচ্ছে। এছাড়াও, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার ও জলপাইগুড়ি জেলাতেও গরম এবং অস্বস্তিকর আবহাওয়া উপলব্ধ।

কলকাতা শহরে সকালে হালকা রোদের চোখ রঙ পেতে পারে। দিনের বেলায় আংশিক মেঘলা আকাশ দেখা যাচ্ছে। তাপমাত্রা এখানে অবস্থিতি সম্পর্কে পূর্বাভাস দেয়া হচ্ছে। জলবায়ু গরম এবং অস্বস্তির প্রভাব এখানে মনে রাখতে হবে। অনুসারে, সকালের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা প্রায় ২৯.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকালের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৯.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে সাধারণ আর্দ্রতার পরিমাণ প্রায় ৪৫ থেকে ৯০ শতাংশ।

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।