জল সাপ্লাই নিয়ে কি বললেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী আজকের খবর

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রাচীন সময়েই জল সরবরাহ প্রোগ্রামটি পরিচালনা করেন। এই প্রোগ্রামের কার্যক্রম বিভিন্ন স্থানে চলছে। কিছু স্থানে পাই বসানো হচ্ছে, কিছু জায়গায় ট্যাংকি স্থাপন করা হচ্ছে, এবং আরেকটি অংশে জল সরবরাহ করা হচ্ছে।

জল সাপ্লাই নিয়ে কি বললেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী আজকের খবর

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে জল সরবরাহ প্রোগ্রামটি প্রাথমিক ধারণা মেনে আনা হয়েছিল এবং এটি বর্তমানে বিভিন্ন অংশে প্রকারভেদে কাজ করছে। এই উদ্যোগের মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গের জনগণ জল সরবরাহের সুবিধা উপভোগ করতে পারছেন।

এই জল সাপ্লাইয়ের বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী কিছু কথা বলেছেন হাওড়ার একটি প্রশাসন অধিবেশন থেকে তিনি বলেছেন যে

  • হাওড়া জেলায় ৬ লক্ষ ৬৩ হাজার বাড়িতে ওয়াটার পৌঁছে দেওয়া হবে।
  • এবং ২ লক্ষ ৭৮ হাজার বাড়িতে ইতিমধ্যে পৌঁছে গেছে।
  • তিনি আরো বলেন যে স্টেট গভর্নমেন্ট ৭৫ পার্সেন্ট খরচ বহন করছে।
  • এবং তার থেকে GST নিয়ে কেন্দ্র সরকার ২৫% খরচ বহন করছে।

মুখ্যমন্ত্রী অধিবেশনে আরও উল্লেখ করেন যে, জল সরবরাহের জন্য পাইপ লাইন প্রতিষ্ঠা করতে লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ হচ্ছে, কারণ যেসব জায়গা পাইপ পাঠানো হবে, সেগুলি কেনার জন্য খরচ করতে হবে এবং এগুলির মেনটেনেন্স খরচ সহজে হয়না। তিনি এটির উপর দক্ষতার সাথে মনোনিবেশ করেছেন এবং প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন। এছাড়াও, সঠিক পরিপাটি নেওয়ার জন্য মানবসম্পদের অত্যন্ত গুরুত্ব দেন। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন যে, সরকার প্রতিষ্ঠান এবং স্থানীয় সমাজের সহায়তায় এই সমস্যার সমাধান করতে প্রস্তুত।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী প্রদত্ত সাহায্যের মাধ্যমে রাজ্যের বাসিন্দাদের প্রতিদিনের জীবন সহজ করে তুলছেন। তারা কৃষকদের জন্য ‘কৃষক বন্ধু‘ প্রকল্প উঠিয়ে আসেন, যার মাধ্যমে কৃষকদের প্রায় প্রতি বছর দুবার আর্থিক সাহায্য পাওয়া যায়। তার পাশাপাশি, তিনি প্রতিষ্ঠিত করেছেন বিভিন্ন প্রকল্প, যেমন: ‘স্বাস্থ্য সাথী কার্ড’, ‘শস্য বীমা’, ‘লক্ষীর ভান্ডার’, ইত্যাদি, যা সামাজিক ও আর্থিক উন্নতির জন্য প্রয়োজনীয়। তার প্রচুর প্রয়াসের মাধ্যমে তিনি রাজ্যের বাসিন্দাদের জীবনযাপনের মানচিত্র সমৃদ্ধ করেছেন।

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।