West Bengal: উচ্চ মাধ্যমিকে চালু হচ্ছে নতুন নিয়ম, দেখুন এক নজরে।

উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ পূর্বেই ঘোষণা করেছে যে, একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণীতে সিমেস্টার পদ্ধতিতে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এবার এটি নিশ্চিত হয়েছে এবং নম্বর সহ পারসেন্টাইল মান প্রদান করা হবে।

উচ্চ মাধ্যমিকের নতুন নিয়ম

এবার উচ্চ মাধ্যমিকের নতুন নিয়ম হচ্ছে পারসেন্টাইল মান প্রদান করা হবে।

বিশ্বব্যাপী সমস্ত বড় বড় পরীক্ষায় এখন মোট নম্বরের সঙ্গে সহযোগিতা করে পারসেন্টাইল মান প্রদান করা হয়।

সংসদের সভাপতি চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য বৃহস্পতিবার বলেছেন যে, “২০২৬ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবার সময়ে ছাত্র-ছাত্রীদের মোট নম্বরের সাথে পারসেন্টাইল1 মান প্রদানের পাশাপাশি বিষয় ভিত্তিক পারসেন্টাইল মানও প্রদান করা হবে।”

  1. পারসেন্টাইল হল এমন একটি পরিমাপ যা একটি ডেটা সেটের মধ্যে কোন একটি স্থানাঙ্ক বা মান প্রদর্শন করে যেখানে ডেটা সেটটির মধ্যে বিশ্বাসযোগ্যতা পরিমাপ করা যায়। পারসেন্টাইলের মাধ্যমে ডেটা সেটের মধ্যে সর্বাধিক একটি বা বেশি মান বা স্থানাঙ্ক নির্ধারণ করা হয়। এটি সাধারণত শতকরা ভিত্তিতে প্রকাশ করা হয়, অর্থাৎ সম্পূর্ণ ডেটা সেটটিতে ১০০ টি পারসেন্টাইল থাকে। প্রতিটি পারসেন্টাইলের জন্য একটি নির্দিষ্ট মান বা স্থানাঙ্ক রয়েছে যা ডেটা সেটের মধ্যে সেই পারসেন্টাইলের নিচের ডেটাগুলির বা তাদের মানগুলির অধিকাংশ বা সব অংশের একটির একটি হয়। পারসেন্টাইল ব্যবহার হয় ডেটা সেটের অবস্থান বা পারসেন্টেজ মান নির্ধারণে এবং তা ব্যক্তিগত বা সংস্থাগত প্রাথমিক উপাত্তে তুলনামূলক করায় ব্যবহৃত হয়। এটি বিশেষভাবে শিক্ষা ও পরীক্ষার প্রসঙ্গে ব্যবহৃত হয় যেখানে শিক্ষার্থীদের নোটে পারসেন্টাইল মানে তাদের প্রদর্শনের তুলনামূলক মান প্রদর্শন করা হয়। ↩︎

এই মান প্রদান সম্পর্কে সংসদের সভাপতি কথা

চিরঞ্জীব বলেছেন যে, পারসেন্টাইল মাধ্যমে একটি পরীক্ষার্থীর মেধা তালিকায় তার অবস্থান পরিষ্কার হয় এবং এটি উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তির সময়ে সুবিধা সাধারণত দেয়।

পরীক্ষার্থীরা উচ্চ মাধ্যমিকের পরীক্ষায় যদি ৫০০ নম্বরের মধ্যে ৪৯০ পেয়ে তাদের জন্য পারসেন্টাইল কি হবে তা জানতে পারবেন একটি উদাহরণ দেখে। ধরা যাক, কোন পরীক্ষার্থী ৫০০ নম্বরের মধ্যে ৪৯০ পেয়েছে এবং সেটাই সর্বোচ্চ নম্বর হলো। এই অবস্থায়, তার পারসেন্টাইল হবে ১০০। অর্থাৎ, সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়া পরীক্ষার্থীরা সবার মধ্যে উচ্চতম পারসেন্টাইল পাবেন। আর ৪৯০ নম্বর হলেও সেই নম্বরকে সর্বোচ্চ (১০০) ধরে নিয়ে তার উপরে বাকি পারসেন্টাইল প্রস্তুত হবে।

সংসদ সভাপতির মন্তব্য অনুযায়ী, যখন কেউ পদার্থবিদ্যায় ১০০ পারসেন্টাইল প্রাপ্ত করে, তখন সে বুঝতে পারে যে তার পদার্থবিদ্যায় সবচেয়ে বেশি নম্বর প্রাপ্ত হয়েছে। এটি প্রমুখ পরীক্ষার প্রক্রিয়াগুলিতে আমরা দেখতে পাচ্ছি যে এখন মোট নম্বরের সাথে এই পারসেন্টাইল ও সহায়ক তথ্য হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে।

এ বার ২০২৬ সাল থেকে উচ্চ মাধ্যমিকেও তা চালু হবে।

সভাপতি বলেছেন যে, উচ্চ মাধ্যমিকের মূল্যায়নের কাজ খুব দ্রুততার সঙ্গে চলছে। সংসদে ৮০ শতাংশের উপরে নম্বর জমা পড়েছে অনলাইনের মাধ্যমে। এই গতিতে চলছে যে মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল বেরোনোর কিছু দিন পর উচ্চ মাধ্যমিকের ফল প্রকাশিত হবে।

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।